ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ , ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫, সকাল ১১:৪৭

পেরেজের বিষ্ময়কর ম্যানিলা টু মেক্সিকো ভ্রমন

অক্টোবর, ১৫৯৩ খ্রিষ্টাব্দ,

গভর্নরের প্রাসাদ, ম্যানিলা, ফিলিপাইন।

গিল পেরেজ সেদিনও প্রাসাদের নিরাপত্তা রক্ষায় নিয়োজিত ছিলেন, গভর্নর কিছুদিন আগে চাইনিজ দস্যু দ্বারা আক্রান্ত হয়ে নিহত হয়েছিলেন, আর গিল পেরেজ আর তার বাহিনির দায়িত্ব্ব ছিল সেই প্রাসাদ রক্ষার যতদিন নতুন গভর্নর দায়িত্ব না নেয়। ভীষণ ক্লান্তিতে ভাবলেন, দেয়ালের গায়ে হেলান দিয়ে একটু বিশ্রাম নিবেন, কিন্তু যখন চোখ খুললেন অবাক হয়ে গেলেন, কোথায় তার পরিচিত শহর, কোথায় গভর্নরের প্রাসাদ আর কোথায় ম্যানিলা? এখানের লোকের পরিধেয় জামা দেখে তিনি আরো বিস্মিত হলেন, ভাবলেন কাজে ফিরে যাবেন কিন্তু প্রাসাদ আছে আশেপাশে কিন্তু সেটা তো ম্যানিলার নয়। লোকজনকে জিজ্ঞেস করতেই লোকে তাকে পাগল ঠাওরালো, এটা তো ম্যানিলা, ফিলিপাইন নয়, মেক্সিকো সিটি।

চিন্তা করুন, ষোড়শ শতকে একটি পাল তোলা জাহাজের যেখানে এতখানি পথ পেরুতে সময় নিত দুইমাস সেখানে রাতারাতি কিছু মুহূর্তের ব্যবধানে গিল পেরেজ ম্যানিলা টু মেক্সিকো সিটি?

পেরেজ জানালেন, ম্যানিলার গভর্নর মারা গিয়েছে, তিনি ম্যানিলা থেকে এসেছেন, মেক্সিকোর লোকেরা পাগল ভেবে তাকে জেলে পুরে দিল, দুই মাস পর যখন ফিলিপাইন থেকে জাহাজ এলো, সব পরিষ্কার হয়ে এল।

কিন্তু সমস্যা দাড়ালো, কীভাবে, কেন আর কোন শক্তিবলে এটি সম্ভব হল?

টেলিপোর্টেশনের এই অবাক করা ঘটনার পিছনের ব্যাখ্যাই বা কী?

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top
Loading...