ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ , ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫, সকাল ১১:৪৬

পর্তুগালে সামজিক সংগঠন সেভ বাংলাদেশের উদ্যোগে বিজয় দিবসের আলোচনা সভা

বিজয়ের ৪৬তম বার্ষিকীতে বিশ্বের দেশে দেশে বাংলাদেশীরা পরম শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় স্মরণ করছে মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী লাখো শহীদকে। যাদের জীবন উৎসর্গে আমরা পেয়েছি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। দিবসটি উপলক্ষে দেশের পাশাপাশি প্রবাসের সমাজিক সংগঠনগুলোও যথাযোগ্যভাবে দিবসটি পালন করে। অাটলান্টিক পাড়ের দেশ পর্তুগালে বাংলাদেশীদের সামাজিক সংগঠন ‘সেভ বাংলাদেশ’ বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে অায়োজন করে অালোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

লিসবন শহরের ব্যস্ততম গলি বাংলাদেশী অধ্যুষিত মার্তৃম-মুনিজ, রুয়া দ্যা বেনফরমসো, কাজা দ্যা কবিলহা হলে স্থানীয় সময় বরিবার রাত অাটটায় অনুষ্ঠিত হয় অালোচনা সভাটি। সংগঠনটির যুগ্ন-অাহবায়ক তাহের অাহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন সংগঠনটির সদস্য সচিব মিজানুর রহমান। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরঅান থেকে তিলাওয়াত করেন হাফেজ মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান।

অালোচনা সভায় বক্তারা বলেন, বিজয়ের ৪৬ বছর পালন করলেও বাংলাদেশে অাজও বিজয়ের অাসল চেতনা অনুপস্থিত। পাকিস্তান থেকে স্বাধীনতা ছিনিয়ে অানলেও ভারত এখনো অামাদের দেশ নিয়ে নোংরা খেলায় মেতে অাছে। ভারত অামাদের মুক্তিযুদ্ধের অর্জন নিয়েও অাজ কটাক্ষ করছে। ত্রিশ লক্ষ শহীদ অার লাখো মা-বোনদের ইজ্জতের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতাকে ভরত তাদের নিজেদের সংগ্রাম ইতিহাস বিকৃত করছে। অামাদের এখনই এসব নিয়ে সতর্ক হতে হবে, প্রতিবাদ জানাতে হবে।

অালোচনা পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পর্তুগালের প্রবীন কমিউনিটি নেতা ও পর্তুগাল বিএনপির সভাপতি ওলিউর রহমান চৌধুরী। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদ, সালাহ উদ্দিন, সুনামগঞ্জ সমিতির সভাপতি জাহির আলী, শামসুল ইসলাম, কলামিস্ট মাহবুব সুয়েদ, মোশাররাফ হোসেন, শাহিদ হাসান, কামরুল আলী, আলা উদ্দিন, আলী হায়দার মাহবুব, মোজাহিদুল ইসলাম বাবলু, জাভেদ সরকার, আমিরুল হক, আব্দুস সালাম, আসাদ উল্লাহ, আব্দুস সালাম প্রমুখ।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে পর্তুগাল প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ী, রাজনৈতিক ও কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের মাঝে অারও উপস্থিত ছিলেন প্রবীন কমিউনিটি নেতা মোঃ আলম মিয়া, মোঃ জোবায়ের মিয়া, আমির সুহেল, খালেদ অাহমেদ মিনহাজ, মঞ্জুরুল হোসেন জিন্নাহ, সুমন আহমেদ, সাইফুল হক প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সমাপনী পর্বে দেশাত্মবোধক গানের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন পর্তুগালে বাংলাদেশীদের সাংস্কৃতিক সংগঠন লিসবন শিল্পী গোষ্ঠীর শিল্পীরা।

শহীদদের অাত্মার মাগফেরাত কামনা করে এবং দেশ-জাতির সার্বিক কল্যান কামনায় বিষেশ মোনাজাতের করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা ইব্রাহিম মোল্লা। অনুষ্ঠান শেষে নৈশ্যভোজে অংশ নেন সবাই।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top
Loading...