ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ১১ই আশ্বিন ১৪২৪, ভোর ৫:৩৩

প্রতিশোধের ম্যাচে বায়ার্ন মিউনিখকে ৩ – ০ তে হারাল বার্সেলোনা

আহ ! কি এক শৈল্পিক ছন্দময় এক ফুটবল ম্যাচ। কি নেই আজকের উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের বার্সেলোনা বনাম বায়ার্ন মিউনিখের প্রথম লেগের ম্যাচে। ন্যু ক্যাম্পে নিজেদের পরিচিত আঙিনায় শৈল্পিক ছন্দের পসরা সাজিয়ে বসেছিল যেন কাতলানরা। একের পর এক আক্রমণে বায়ার্নের রক্ষন ভাগ কাপিয়ে দিয়েছে । বায়ার্ন গোল রক্ষক ম্যনুয়ল ন্যুয়রের দৃঢ়তায় ম্যাচের ৭৭ মিনিট পর্যন্ত গোল বঞ্চিত ছিল বার্সেলোনা।

বার্সেলোনার সাবেক কোচ গার্দিওলা  ম্যাচের আগেই বলে রেখেছিলেনযে ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দিতে পারে এক মাত্র মেসি। মেসিকে আটকানোর কোন ছকই কাজ করবেনা। বায়ার্ন কোচের কথার হুবুহু প্রতিচ্ছিবি যেন ন্যু ক্যাম্পের হাজার হাজার দর্শক। মেসির নিজের দিনে যে কোন দলই অসহায় হয়ে পড়বে তার সাক্ষী হয়ে রইলো বায়ার্ন মিউনিখ।প্রতিশোধের এ ম্যাচে ৩-০ গোলে বায়ার্নকে উরিয়েই দিলো বার্সেলোনা।

বার্সেলোনা শুরু থেকেই আক্রমনাত্বক ফুটবল খেলতে থাকে। রিবেরি,রোবেন বিহীন বায়ার্নদের সেভাবে জ্বলে উঠতে দেখা যায়নি খেলার প্রথম ভাগে।এরমধ্যেও মুলার, লোভান্ডোস্কীরা কয়েকবার বার্সা শিবিরে হানা দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছে তাদের শক্তিমত্তা।কয়েকটি সহজ সুযোগ ব্যার্থ না হলে ম্যাচের ফলাফল অন্যরকমও হতে পারতো। থিয়াগো, মুলার প্রায়ি বার্সা শিবিরে হানা দিয়েছিলো কিন্তু আলভেজ, পিকে, মাশ্চেরানোদের কাছে পরাস্ত হন তারা।

খেলার ১১ মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো কাতলানরা। পোস্টে গোল কিপারকে একা পেয়েও গোল করতে ব্যার্থ হোন বার্সা স্ট্রাইকার সুয়ারেয। খেলার প্রথমার্ধে একের পর এক আক্রমণে জার্মান জায়ান্টদের রক্ষনভাগ কাপিয়ে দেয় মেসি,নেইমার, সুয়ারেয ত্রয়ী।এছাড়া বায়ার্নের হয়ে লোভান্ডোস্কী ও একটি সহজ সুযোগ নষ্ট করেন। খেলার ৩৪ মিনিটের মাথায় ফাউল করায় জাভি আলানসো প্রথমার্ধে এক্ মাত্র হলুদ কার্ড দেখেন।

দ্বিতীয়ার্ধে ৫২ মিনিটে ইনিয়েস্তাকে ফাউল করায় হলুদ কার্ড দেখে বানাতিয়া। খেলার ৫৬ মিনিটে মেসিকে অবৈধভাবে বাঁধা দেয়ায় অপর হলুদ কার্ড দেখেন বারনাট। বার্সা শিবিরের ডিবক্সের বাইরে ফাউল করায় বার্সার হয়ে হলুদ কার্ড দেখেন জেরার্ড পিকে । ৬৮ মিনিটে মুলারকে বাঁধা দেয়ায় বার্সার হয়ে অপ্র হলুদ কার্ডটি দেখেন নেইমার।খেলার ৭৭ মিনিটে দানি আলভেজ থেকে পাওয়া বলে দি বক্সের কয়েক গজ দূর থেকে নেয়া চোখ ধাঁধানো এক শটে বার্সাকে এগিয়ে দেন মেসি। এর তিন মিনিট পরই খেলার ৮০ মিনিটে ইভান রাকিটিক এর কাছ থেকে বল পেয়ে একাই কয়েকজন ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে বায়ার্ন গোল রক্ষকের মাথার উপর দিয়ে বল জালে পাঠিয়ে দেন মেসি। এ গোলের মধ্য দিয়ে গতকালই চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে মেসিকে টপকে গোলদাতাদের তালিকায় সবার উপরে চলে গিয়েছিলেন রিয়াল তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আজকের ম্যাচে রোনালদোকে টপকে আবারো শীর্ষস্থান পুনুরুদ্ধার করেন লিওনেল মেসি। খেলার অতিরিক্ত সময়ে(৯২ মিনিট)  ফাকা স্থানে বল পেয়ে গোল রক্ষকের নিচ দিয়ে বল জালে জড়িয়ে দেন নেইমার।

 কাতালানরা সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে তাদের জয়ের ধারা বজায় রাখলো এবং সেই সাথে ফাইনালের পথে এক পা দিয়েই রাখলো । সবশেষে প্রতিশোধের এ ম্যাচে ভালোভাবেই শেষ করলো কাতলানরা। ফাইনালে যেতে হলে  বায়ার্নকে ৩ গোলের বাধাঁ পেরিয়ে অনেকটা পথ যেতে হবে। এ ম্যাচে রিবেরি, রোবেনদের অনুপস্তিতি ভালোভাবেই টের পেলো বায়ার্ন মিউনিখ।

লা লিগা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন
“ গতিময় আর শৈল্পিক ফুটবলে বায়ার্নের রক্ষণভাগ কাপিয়ে দিচ্ছে বার্সা “
Top