ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ১১ই আশ্বিন ১৪২৪, ভোর ৫:২৭

ক্ষমতাধর পোষ্ট মাষ্টার শহীদুল ইসলামের ঔদ্যত্ত ॥

মোঃ এনামুল হক, কাউখালী (পিরোজপুর) সংবাদদাতা॥ কাউখালীতে ক্ষমতাধর পোষ্ট মাষ্টার শহীদুল ইসলামের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও নানা অনিয়মের অভিযোগ ওঠেছে। গ্রাহকদের সাথে লেনদেনে অনিয়ম ও চরম দুর্ব্যবহারের কারণে নিজেদেরকে গুটিয়ে নিয়েছেন পোষ্ট অফিসের আমানতকারীরা। ইতিপূর্বে পোষ্টঅফিসে রক্ষিত সাইজ কাঠ ও আসবাপত্র বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। তার স্বেচ্ছাচারিতা ও দুর্ব্যবহারের ফলে মানুষ পোষ্ট অফিস ব্যবহার থেকে দূরে সরে যাচ্ছে। ফলে সরকার বিপুল পরিমাণ রাজস্ব হারাচ্ছে। স্থানীয় লোকজনদের অভিযোগে জানা যায়, বর্তমান পোষ্ট মাষ্টার মোঃ শহিদুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে কাউখালী উপজেলা পোষ্ট অফিসে কর্মরত আছেন। তিনি ওই অফিসে যোগদানের পর থেকেই সেবা গ্রহণকারী ও আমানতকারীদের সাথে চরম দুর্ব্যবহার করে আসছেন। তিনি আসার পর থেকে প্রায়ই সরকারী টাকা পয়সা খোয়া যাচ্ছে এমন অভিযোগে অন্যান্য কর্মচারীদের সাথে চরম দুর্ব্যবহার করেন। সে কারণে কোন কর্মচারী ঐ ষ্টেশনে থাকতে চান না। জানা গেছে, তার পূর্বে কর্মরত অপারেটর আজমল হোসেন লাভলু পোষ্ট অফিসের  বেশ কিছু কাঠ ও আসবাপত্র সরিয়ে ফেলেন। এ বিষয়ে অভিযোগ হলে তাকে চাকুরী থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয় এবং ওই কাঠগুলো উদ্ধারের পর তালিকা করে পোষ্ট অফিসের হেফাজতে রাখা হয়। বর্তমানে ওই কাঠগুলো যথাস্থানে নেই। এ বিষয়ে এলাকায় অভিযোগ উঠলে স্থানীয় সাংবাদিকরা তার সাথে কথা বলার জন্য অফিসে গেলে দেখা যায়  পোষ্ট মাষ্টার মোঃ শহিদুল ইসলাম তার অফিসের চেয়ারে বসে ধূমপান করছেন। এ সময় অভিযোগ সম্পর্কে তার মতামত জানতে চাইলে ক্ষেপে গিয়ে  তিনি বলেন, আমার উর্ধ্বতন কর্র্তৃপক্ষ’র (ইন্সপেক্টর,ডিপিএমজি) নির্দেশে কাঠ নিয়েছি। আপনাদের যা খুশি লিখেন। এ বিষয়ে ইন্সপেক্টর ফরিদ আহম্মেদের সাথে কলা বললে তিনি জানান অচিরেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বরিশারের ডিপিএমজি’র (০১৭১২৭৯০০৩৪) সাথে কথা বললে তিনি বলেন, বর্তমানে তিনি ভোলায় অবস্থান করছেন। অভিযোগের কপি হাতে পেলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অতিরিক্ত তাপদাহে মালয়শিয়া প্রবাসীর মৃত্যু
কাউখালীতে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচীতে অনিয়মের অভিযোগ
Top