ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ১১ই আশ্বিন ১৪২৪, ভোর ৫:২৭

একজন সফল মেয়রের গল্প

successful meyorএকবার হঠাৎ করেই তার কাছে পত্র আসল যে তিনি ইরানের রেভ্যুলশনারী গার্ড বাহিনীর এয়ার ফোর্সের কমান্ডার নিযুক্ত হয়েছেন অথচ তিনি তখনো একজন পূর্ণাঙ্গ জঙ্গি পাইলট নন। সেদিন রাতে বাড়ি ফিরে এ কথা বলতেই তার ছেলে হাসতে হাসতে বলল, ‘যে কিনা বিমান চালানোই জানেনা সে হয়েছে বিমানবাহিনীর কমান্ডার !’ জবাবে তিনিও হাসতে হাসতে বললেন, ‘সমস্যা কি ! আমি তো এখন কো-পাইলট, শীঘ্রই জাম্বো জেট নিয়ে তোমার বাড়ির উপর উড়াউড়ি করব দাড়াও!’ কথা রেখেছিলেন তিনি।

 

গরীব পরিবারেই সন্তান ছিলেন ভদ্রলোক বলা যায়, ছোটকালে বেকারীতে রুটি বিক্রি করেছেন। তার নাম কলিবফ, মুহাম্মাদ বাকের কলিবফ। ফার্সিতে কলিবফ মানে হচ্ছে যিনি কার্পেট বুনেন। কার্পেট বুনেছেন কিনা জানিনা তবে ইরানের রাজধানীকে মনের মাধুরী মিশিয়ে বুনেছেন তিনি। পরপর তিনবারের নির্বাচিত জনপ্রিয় মেয়র এবং গত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হাসান রুহানীর পরই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোট পান তিনি। ইরানী মা এবং কুর্দি বাবার এই সন্তান কিশোর বয়সেই আকৃষ্ট হয়ে পড়ে ধর্মীয় গোষ্ঠীর দিকে, মাশহাদে নিয়মিত বিভিন্ন আলেমদের বক্তব্য শুনত সে। একবার ভূমিকম্পে যুবকদের নিয়ে সংগঠন গঠন করে নেমে পড়েন মানুষকে উদ্ধার এবং সাহায্য সংগ্রহের জন্য। মাত্র ২০/২১ বছর বয়সেই ইরান-ইরাক যুদ্ধে অসামান্য পারদর্শীতা দেখিয়ে কমান্ডার হোন রাসুলুল্লাহ (সা.) ডিভিশন এবং নাসের ট্রুপস এর। যুদ্ধের পর প্যারা মিলিটারী স্বেচ্ছাসেবক গ্রুপ বাসিজের ডেপুটি চীফ হিসেবে নিয়োগ পান।

 

তেহরানের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল এবং জনপ্রিয় মেয়র তিনি। বেশকবার পশ্চিমাদের কাছ থেকে এওয়ার্ডও পেয়েছেন বিশ্বের সবচেয়ে সফল ও দক্ষ মেয়র হিসেবে। তিনি ইরানের সবচেয়ে বিখ্যাত ইউনিভার্সিটি শরীফ ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজিতে অধ্যাপনা করেছেন। তেহরান ইউনিভার্সিটিরও শিক্ষক তিনি। পিএইচডি করেছেন ভূ-রাজনীতির উপরে। দায়িত্ব পালন করেছেন ইরানের রেভ্যুলশনারী গার্ড বাহিনীর এয়ার ফোর্সে। ইরান পুলিশের চীফ হিসেবেও একসময় দায়িত্বে ছিলেন তিনি। হাল আমলের এয়ারবাস চালানোর সার্টিফিকেটও আছে তার। মাঝেমাঝেই নাকি সে দক্ষতা ঝালিয়ে নিতে ইরান এয়ারের বিমান নিয়ে উড়াল দেন ইরানের আভ্যন্তরীন বিভিন্ন গন্তব্যে।

ছবি: রুটি বিক্রেতা সেই স্বপ্ন বোনা ছেলেটি মাঝেমাঝেই তেহরানের আকাশে মিউনিসিপ্যালিটির হেলিকপ্টারে উড়ে বেড়ান প্রিয় তেহরান কেমন আছে, কেমন চলছে দেখার জন্য।

উমাইর চৌধুরী

উমাইর চৌধুরী

''আজকে উমর পন্থী পথীর দিকে দিকে প্রয়োজন
পিঠে বোঝা নিয়ে পাড়ী দেবে যারা প্র্ন্তার প্রাণ- পণ,
উষর রাতের অনাবাদী মাঠে ফলাবে ফসল যারা
দিক-দিগন্তে তাদের খুঁজিয়া ফিরিছে সর্বহারা।''

--ফররুখ আহমদ
উমাইর চৌধুরী
চতুর্থ বারের মত সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলো এরদোগান কিন্তু …
দুটি মোবাইল ফোন যে প্রধানমন্ত্রীর একমাত্র সম্পদ!
উমাইর চৌধুরী

উমাইর চৌধুরী

''আজকে উমর পন্থী পথীর দিকে দিকে প্রয়োজন পিঠে বোঝা নিয়ে পাড়ী দেবে যারা প্র্ন্তার প্রাণ- পণ, উষর রাতের অনাবাদী মাঠে ফলাবে ফসল যারা দিক-দিগন্তে তাদের খুঁজিয়া ফিরিছে সর্বহারা।'' --ফররুখ আহমদ

Leave a Reply

Be the First to Comment!

Notify of
avatar
wpDiscuz
Top